ঘন ঘন বৃষ্টি ও জলাবদ্ধতার অজুহাতে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের দাম আকাশছোঁয়া। এদিক দিয়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছে পিয়াজ। মাসখানেক ধরেই পিয়াজের দাম সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে থাকায় অনেকে পিয়াজ কেনাও কমিয়ে দিয়েছে। দামের কারণে এখন ক্রেতারা পিয়াজের কাছে ঘেঁষতেই ভয় পান। পিয়াজের দাম নয়, পিয়াজের ঝাঁজেই চোখে পানি এসে যাচ্ছে ক্রেতার। খুব তাড়াতাড়ি যে এ অবস্থার পরিবর্তন হবে সে আশাও নেই।

নতুন পিয়াজ বাজারে আসার পর দাম কমতে পারে। তার আগ পর্যন্ত  বাড়তি দামেই পিয়াজ কিনতে হবে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। বাজারে দেশি পিয়াজের কেজি এখন ১২০ থেকে ১২৫ টাকা। আমদানি করা পিয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৮০ থেকে ৯০ টাকায়। ব্যবসায়ীদের দাবি, গত কয়েক দিনে খারাপ আবহাওয়ার কারণে নতুন পিয়াজ তুলতে দেরি হচ্ছে।

বাজারে নতুন পিয়াজের প্রভাব পড়তে আরো অন্তত সাত থেকে ১০ দিন লাগবে।

আবার কেউ কেউ বলছেন, এছাড়া ভারতের বাজারে পিয়াজের দাম বেশি হওয়ায় দেশের বাজারে নতুন পিয়াজ আসলেও দামে খুব একটা প্রভাব পড়বে না। আমদানি করা পিয়াজের দামও বেড়ে চলছে। অনেক পাইকারী ব্যবসায়ী দেশি পিয়াজ বিক্রি করছেন না। তারা জানান, অধিকাংশ ক্রেতারাই এখন ভারতীয় এলসি পেয়াজেই ঝুঁকছেন। তারা দেশি পিয়াজ কিনে লোকসান গুনতে চান না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here